1. masudkhan89@yahoo.com : admin :
  2. narsingdirawaaz1@gmail.com : Narsingdir Awaaz : Narsingdir Awaaz
শিরোনাম : :
মাধবদীতে সরকারি হালট দখল করে বাগান বাড়ি নির্মাণ, বিপাকে অসংখ্য পরিবার। প্রচন্ড দাবদাহের পর নরসিংদীতে হানা দিল কালবৈশাখী ঝড় মাধবদীর বালাপুরে ৫শতাধিক বছরের পুরাতন মন্দিরে বাৎসরিক পূজা অনুষ্ঠিত মাধবদীতে “সুখায়ুর” আয়োজনে মাংস বিতরণ ছোট মাধবদী যুব সমাজের আয়োজনে ঈদ উপহার বিতরণ মাধবদীতে ‘মা তাঁরা সংঘের’ ঈদ সামগ্রী বিতরণ মাধবদী জনকল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ নরসিংদী জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সাংবাদিকদের মিলন মেলায় পরিণত মাধবদী থানা পুলিশের হাতে ভূয়া র‍্যাব কমান্ডার আটক পাইকারচর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসেমের নিজস্ব অর্থায়নে হতদরিদ্রদের মাঝে চাল বিতরণ

নরসিংদীর বেলাবতে ইউপি চেয়ারম্যানের ভয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন সাবেক স্কুল শিক্ষক। 

  • আপডেট সময়: শনিবার, ২০ মে, ২০২৩
  • ৪৩ জন দেখেছেন

 

মকবুল হোসেন মাধবদী নরসিংদী প্রতিনিধি ঃঃ  নরসিংদীর বেলাব উপজেলার চরবেলাবরের ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সাফি(৫০) ও তার ছেলে রাশেদ (৩০) এর ভয়ে আব্দুল আউয়াল (৮০) নামে সাবেক এক স্কুল শিক্ষক বাড়িঘরে তালা দিয়ে তার পরিবার নিয়ে পালিয়ে বেড়ানোর অভিযোগ উঠেছে।

এঘটনায় ভুক্তভোগী আব্দুল আউয়াল মাস্টার নরসিংদী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন, মামলা নং ৩৬/২০২৩

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার (২৮ এপ্রিল) বিকেল ৫ টার দিকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মোহাম্মদ আলী সাফি(৫০), তার ছেলে রাশেদ (৩০) ও অজ্ঞাত ৪/৫ জনের দলবল সহ ভুক্তভোগীর বসত বাড়িতে দা, ছুড়ি, বল্লম ও চাপাতি সহ অনুপ্রবেশ করে।এসময় তারা আব্দুল আউয়াল মাস্টার ও তার পরিবারকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং প্রাণে মেরে ফেলতে উদ্যত হয়। পরে তারা ভয়ে ডাক চিৎকার শুরু করলে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে তারা তাদেরকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে চলে যায়।

ঘটনার সত্যতা যাচাই করতে ঘটনাস্থলে গিয়ে ভুক্তভোগীর বাড়িঘর তালাবদ্ধ পাওয়া যায়।

এব্যাপারে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সাফির কাছে জানতে চাইলে তিনি দৈনিক সাংবাদিকদোর বলেন, আব্দুল আউয়াল মাস্টার মূলত একজন আদম ব্যবসায়ী।

সে বিদেশ পাঠানোর নাম করে অনেককে সর্বশান্ত করে দিয়ে নিজে টাকার পাহাড় গড়েছে।ভৈরবসহ বিভিন্ন স্থানে তার একাধিক বাড়ি রয়েছে। সে ও তার ছেলে আমার ছেলে রাশেদকে ভালো ভিসায় ইটালি নেয়ার কথা বলে কৃষি ভিসায় ইটালি নিয়ে কোন চাকুরী দিতে পারেনি। অবশেষে সেখানে ৫/৬ মাস মানবেতর জীবন-যাপন করে আমার ছেলে দেশে ফিরে আসে।

দেশে আসার পর আমার ছেলের সাথে ছলচাতুরির কারণ জানতে চেয়ে টাকা ফেরত চাইলে সে আমাদের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করে যার সাথে আমরা আদৌ জড়িত নই। সে আমার ছেলেকে বিদেশ পাঠিয়ে আমার বিশাল টাকার ক্ষতি করেছে। সে শুধু আমার নয় আশেপাশের এলাকার কয়েক শতাধিক পরিবারের কাছ থেকে ইটালি পাঠানোর নামে টাকা নিয়ে তাদের পথে বসিয়ে দিয়েছে। একজন যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে বিদেশ নেওয়ার নামে মানুষের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে প্রতারণা করায় এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে আউয়াল মাস্টারকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।

বেলাব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তানভীর আহমেদ এর কাছ থেকে জানতে চাইলে এবিষয়ে তিনি অবগত নন বলে জানান।

 

মকবুল হোসেন মাধবদী নরসিংদী

সামাজিক যোগাযোগ এ শেয়ার করুন

একই বিভাগের আরও সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২১ নরসিংদীর আওয়াজ
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট @ ইজি আইটি সল্যুশন